• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২১:৩৩    ঢাকা সময়: ০৭:৩৩

তবে কি বিদায়ঘণ্টা বাজছে ডোমিঙ্গোর

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  কোচ হিসেবে তার সাফল্য বলতে কেবল ২০২০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জয়, ভারতের বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি জয় এবং সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ‘দ্বিতীয় সারির’ দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়। সবক’টির মধ্যে কেবল ভারতের বিপক্ষে একটি জয়ই ডোমিঙ্গোর সত্যিকারের সাফল্য!
 
আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২২৪ রানের অস্বস্তির হার দিয়ে বাংলাদেশ অধ্যায় শুরু করেছিলেন ডোমিঙ্গো। গত দেড় বছরে সেই হারের বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছেন তিনি ও তার দল। লাগাতার ব্যর্থতায় ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স নিয়ে যতটা সমালোচনা হচ্ছে, ডোমিঙ্গোকে নিয়ে তার চেয়ে বেশি আলোচেনা চলছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে (বিসিবি)।
 
বিসিবি তার ব্যাপারে এখনই কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছালেও বাংলাদেশের ক্রিকেটে যে ডমিঙ্গোর ভাগ্য সুতোয় ঝুলছে, সেটি স্পষ্ট। শ্রীলঙ্কায় দুটি টেস্ট ও ঘরের মাটিতে লঙ্কানদের বিপক্ষেই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ওপর নির্ভর করছে ডোমিঙ্গোর ভবিষ্যৎ। এ দুটি সিরিজ শেষে দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের পারফরম্যান্স বিবেচনা করা হবে, এরপর নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত।
 
বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস চেয়ারম্যান আকরাম খান জানালেন তেমনটাই, ‘কোচের কাজে অবশ্যই আমরা সন্তুষ্ট নই। যদিও তার ব্যাপারে আপাতত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভাবনা নেই বোর্ডের। সামনে দুটি সিরিজ আছে। এই দুটি সিরিজের পর তার পারফরম্যান্স মূল্যায়ন করা হবে।’
 
কেবল ডোমিঙ্গোর পারফরম্যান্সই নয়, অন্য কোচিং স্টাফদের কাজের মূল্যায়নও করবে বিসিবি। মনঃপুত না হলে তাদের ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আকরামের বক্তব্য, ‘নতুন বছরের চুক্তি এখনও ঘোষণা করা হয়নি। এ ব্যাপারে দেখার আছে। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুটি সিরিজের পারফরম্যান্স দেখতে চাই আমরা।’
 
এদিকে বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন অবশ্য কোচের হয়েই কথা বললেন। সাবেক অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি ব্যক্তিগতভাবে জানি ডোমিঙ্গো ভালো কোচ। আমরা তো চিন্তা-ভাবনা করেই রাসেলকে নিয়েছিলাম। পারফরম্যান্স তো কোচের ওপর নির্ভর করবে না। খেলবে প্লেয়াররা, কোচরা না। কোচ তো হাজারটা পরিকল্পনা দেবেন। যদি মাঠে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে না পারেন, তাহলে ওই পরিকল্পনা দিয়ে লাভ কী! সুতরাং  প্লেয়ারদের ভালো খেলতে হবে। আবার প্লেয়াররা ভালো খেলছে কিন্তু প্লানিং ভালো হচ্ছে না, তাহলে আবার হবে না। এটা আসলে সম্পূরক ব্যাপার।’
 
সুজন আরও বলেছেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, এখানে সমন্বয়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। জানি না কেন এ রকম হচ্ছে, বারবার কেন হচ্ছে? তার (কোচ) সঙ্গে, কাছাকাছি না মিশলে মন্তব্য করাটা আসলে কঠিন।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।