• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২২:১৪    ঢাকা সময়: ০৮:১৪

যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসা ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আশাব্যঞ্জক গন্তব্য: শেখ হাসিনা

দেশকণ্ঠ ডেস্ক : ইউএস-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের মঙ্গলবার উদ্বোধন হলো। এই ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পাঠানো এক ভিডিওবার্তায় যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের চলমান বাণিজ্য সম্পর্ক সহ নানা বিষয় কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় শেখ হাসিনা ব্যবসা ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে ‘আশাব্যঞ্জক গন্তব্য’ হিসেবে তুলে ধরে বলেন- টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, দ্রুত সম্প্রসারণশীল দেশীয় বাজার ও ৪০০ কোটি লোকের বিশাল আঞ্চলিক বাজারের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান সংযোগই বাংলাদেশকে আকর্ষণীয় করেছে।
 
শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে শিল্প কাঁচামাল ও ভোক্তাসামগ্রী- যেমন তুলা, সয়াবিন ও গম রপ্তানি করতে যুক্তরাষ্ট্রকে কোনো শুল্ক দিতে হয় না। শেখ হাসিনা বলেন, বিদেশী বিনিয়োগকে সহজ করতে বাংলাদেশ ক্রমাগতভাবে ভৌত, আইনি ও আর্থিক অবকাঠামোর উন্নতিসাধন করছে। দ্রুত শিল্পায়নের জন্য বাংলাদেশ সরকার ১০০টি ‘বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল’ প্রতিষ্ঠা করছে। শিল্প কারখানা গড়তে আমেরিকার কোম্পানিগুলোর জন্য একটি ‘বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল’ তৈরি করে দিচ্ছি।
 
বৈদেশিক সহায়তার উপর বাংলাদেশের নির্ভরতা অনেক কমলেও উল্টো দিকে লাখ লাখ যুবকের কর্মসংস্থানের জন্য প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের যে বিশেষ প্রয়োজন দেখা দিয়েছে তার কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। যুক্তরাষ্ট্রকে বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও উন্নয়নের পথে যাত্রার শক্তিশালী অংশীদার হিসেবে বর্ণনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্র রপ্তানির বৃহত্তম গন্তব্য, প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের বৃহত্তম উৎস, দীর্ঘকালের উন্নয়ন অংশীদার এবং প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণের গুরুত্বপূর্ণ উৎস। তিনি বলেন, আগামী দিনগুলিতে ইউএস-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের কার্যক্রমকে সমর্থন অব্যাহত রাখবে তাঁর সরকার।
 
এই উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কেও। এসময় তিনি বাংলাদেশ আইসিটি খাতে বর্তমানে কি অবস্থানে রয়েছে তা তুলে ধরে, এই খাতে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগের প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন। বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট তার বক্তব্য জানান, বাইডেন প্রশাসন বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সুসম্পর্ক চান। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার এবং যুক্তরাষ্ট্র নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন। তারা বাংলাদেশে বিনিয়োগের সম্ভাবনা এবং সেক্ষেত্রে করনীয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন। তাছাড়া উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে ইউএস-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট নিশা দেশাই বিসওয়াল, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দফতরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সাবেক এ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি ছিলেন। ইউএস-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুই দেশের ব্যবসায়ী নেতারাও বক্তব্য রাখেন।
দেশকণ্ঠ/অআ
 

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।