• শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ০৫:২৭    ঢাকা সময়: ১৫:২৭

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কবরী

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  রাজধানীর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছে বরেণ্য চলচ্চিত্র অভিনেত্রী ও রাজনীতিবিদ সারাহ বেগম কবরীকে। শনিবার (১৭ এপ্রিল) বাদ জোহর জানাজা শেষে বেলা ২টার দিকে দাফন করা হয় তাকে। এর আগে একইস্থানে রাষ্ট্রীয় সম্মাননাসরূপ গার্ড অব অনার প্রদান করা হয় তাকে।
 
শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জানিয়ে শোক প্রকাশ করছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকারসহ চলচ্চিত্র অঙ্গনের তারকা, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলো। ৫ এপ্রিল দুপুরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার খবর জানতে পারেন তিনি। ওই রাতেই রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। ৭ এপ্রিল দিবাগত রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে নেওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। 
 
এরপর ৮ এপ্রিল দুপুরে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউ ভর্তি হন তিনি। বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন বরেণ্য এ অভিনেত্রী। 
 
১৯৫০ সালের চট্টগ্রামে জন্ম নেন বাংলা চলচ্চিত্রের এ কিংবদন্তী শিল্পী। ১৯৬৩ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নৃত্যশিল্পী বিনোদন জগতে প্রবেশ করেন তিনি। এরপর টেলিভিশন থেকে সিনেমায়। চিত্ত চৌধুরীর সঙ্গে  বিবাহবিচ্ছেদের পর ১৯৭৮ সালে সফিউদ্দীন সরোয়ারকে বিয়ে করেন, পরবর্তীতে ২০০৮ সালে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে তাদের। ব্যক্তিগত জীবনে পাঁচ সন্তানের জননী তিনি।
 
তার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলো হল; সাত ভাই চম্পা’, ‘আবির্ভাব’, ‘বাঁশরি’, ‘যে আগুনে পুড়ি’, ‘দীপ নেভে নাই’, ‘দর্পচূর্ণ,‘সুজন সখী’, ‘আগন্তুক’, ‘নীল আকাশের নিচে’, ‘ময়নামতি’, ‘সারেং বৌ’, ‘দেবদাস’, ‘হীরামন’, ‘চোরাবালি’, ‘পারুলের সংসার’। নায়ক ফারুকের সঙ্গে অভিনীত ‘সুজন সখী’ চলচ্চিত্রটি ছিল তার জীবনের অন্যতম মাইলফলক।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।