• শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ০৫:৩৮    ঢাকা সময়: ১৫:৩৮

মধুমতির পানিতে লবণাক্ততা

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় প্রবাহমান মধুমতি নদীর পানিতে লবণাক্ততা বেড়েছে। এই লবণ বাতাস আর পানিতে মিশে জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশের উপর মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। নদীর নোনাপানি সমগ্র উপজেলায় ছড়িয়ে পড়ে প্রাণীকূলের জীবনচক্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। দেখা দিয়েছে পানিবাহিত বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব। হাসপাতালে বাড়ছে ডায়রিয়া, আমাশয়সহ পানিবাহিত রোগে আক্রান্তদের রোগীদের ভিড়। 
 
টুঙ্গিপাড়া পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুলের উদ্যেগে ভ্রাম্যমাণ ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের মাধ্যমে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর পৌর এলাকায় ১৬ হাজার লিটার বিশুদ্ধ পানি সরবারাহ করা হচ্ছে। বাকি ৫টি ইউনিয়নের মানুষ নিরাপদ পানি পাচ্ছে না। এতে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে তারা। 
 
এছাড়া লবণাক্ত পানির প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে উপজেলার কৃষকেরা। শুষ্ক মৌসুমে নদীর পানিতে লবণের মাত্রা বেড়ে যায়। এ সময় তারা নদী বা খালের পানি সেচ কাজে ব্যবহার করতে পারছেন না। লবণাক্ত পানি ক্ষেতে দিলে জমির উর্বরতা নষ্ট হয়ে ফসল কমে যাওয়ার আশংকা করছেন কৃষকরা।
 
লেবুতলা  গ্রামের কৃষক রবিন বিশ্বাস, কুশলী গ্রামের মিনি বেগম, গোপালপুর গ্রামের অরুন বিশ্বাস বলেন, শুষ্ক মৌসুমে এই মধুমতি নদীর লবণাক্ত পানি জমিতে ব্যবহার করলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। ফসলের উৎপাদন কমে যায়। তাছাড়া কৃষিকাজে উৎপাদন খরচ বেড়ে যায়। এই সময়টা আমরা কৃষকেরা খুবই অসুবিধায় থাকি। পুকুর থেকে পাম্পের মাধ্যমে ক্ষেতে পানি দিলেও যেটুকু দরকার সেটুকু দিতে পারছি না। এ ছাড়া সুপেয় পানির সংকটে আমাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। এ পানি পান করে আমরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছি।
 
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জামাল উদ্দিন বলেন, সাধারণত নদীতে লবণ-পানি তিন মাস থাকে। বর্ষাকালে লবণের পরিমাণ কমতে থাকে। শুষ্ক মৌসুমে লবণের পরিমাণ বেশি থাকায় ফলন কম হয়। এছাড়া লবণ পানি ব্যবহার করলে জমি লবণাক্ত হতে পারে। তাই কৃষকদের নদীর পানি ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।
 
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জসিম উদ্দিন বলেন, লবণাক্ত পানির কারণে নানা রকম রোগের উপদ্রব হচ্ছে। এই পানি মানবদেহের জন্য খুবই ক্ষতিকর। আমরা এই পানি পান থেকে বিরত থাকতে বলছি। এ অবস্থায় আমরা গভীর নলকূপ অথবা পুকুরের পানি ফুটিয়ে পান করার পরামর্শ দিচ্ছি।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।