• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২১:০১    ঢাকা সময়: ০৭:০১

ফেঁসে যাচ্ছেন পরীমণি

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণচেষ্টার শিকার হওয়ার অভিযোগ করা চলচ্চিত্র নায়িকা পরীমণি এবার নিজেই ফেঁসে যাচ্ছেন। প্রকৃত ঘটনা আড়াল করে পরীমণি ধর্ষণচেষ্টার মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে তথ্য পাচ্ছেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। ইতোমধ্যে সেদিনের ঘটনার আরেকটি ভিডিওচিত্র সংগ্রহ করেছে পুলিশ; যেখানে পরীমণিকে বোট ক্লাবের ভেতরে মদপান করা অবস্থায় দেখা গেছে। মদ্যপ অবস্থায় তিনি একটি বিদেশি ব্র্যান্ডের মদ নেওয়া নিয়ে ক্লাবটির পরিচালক নাসির ইউ মাহমুদের সঙ্গে তর্ক করছেন। এ ছাড়া উল্টো নাসির ইউ মাহমুদকেই তিনি ক্লাব থেকে বের হয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, তারা এখন পর্যন্ত যেসব তথ্য পেয়েছেন তাতে নায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টার কোনও প্রমাণ পাননি। মামলাটি নিবিড়ভাবে তদন্ত করা হচ্ছে।
 
পরীমণির মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা ঢাকা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহিল কাফি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা গুরুত্ব দিয়ে এই ঘটনার প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটনের চেষ্টা করছি। মামলা তদন্তের প্রয়োজনে অনেককেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আসামিরা অপর একটি মামলায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। ওই মামলার রিমান্ড শেষ হলে তাকে পরীমণির ধর্ষণচেষ্টার মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এরপর বাদী পরীমণিসহ যারা সেদিন ঘটনাস্থলে ছিলেন তাদেরও বক্তব্য নেওয়া হবে।
 
তদন্ত সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা জানান, সেদিনের (গত ৮ জুন) ঘটনায় পুলিশ ঢাকা বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন। একই সঙ্গে সেই রাতে বোট ক্লাবে দায়িত্ব পালনকারী স্টাফদের সঙ্গে কথা বলেছেন। সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ ও স্টাফদের বক্তব্যের সঙ্গে পরীমণির অভিযোগের কোনও সাদৃশ্য পাওয়া যায়নি। ক্লাবের স্টাফরা তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন, পরীমণি তার সঙ্গীরাসহ রাতে ওই ক্লাবে গিয়ে স্বেচ্ছায় টেবিলে বসে খোশগল্প করতে করতে মদপান করেন। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর একটি ব্লু-লেভেল বিদেশি মদের বোতল নেওয়া নিয়ে সেখানে প্রথমে উচ্চবাচ্য হয়। পরে সেটি হাতাহাতিতে রূপ নেয়।
 
তদন্ত সূত্র জানায়, তারা ইতোমধ্যে ওই রাতের ঘটনার সময়ের খণ্ডিত কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন। এরমধ্যে একটিতে খোদ পরীমণি নাসিরকে গালাগাল করছেন এমন দৃশ্য দেখা গেছে। আরেকটি ভিডিওতে নাসির ইউ মাহমুদকেও উত্তেজিত অবস্থায় পরীমণিকে গালাগাল করতে দেখা গেছে। একই সঙ্গে একটি ভিডিও ক্লিপে পরীমণিকে টেবিলে বসে খোশগল্প করতে করতে মদপান করতে দেখা গেছে।
 
এ বিষয়ে জানতে চাইলে পরীমণি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কয়েক সেকেন্ডের বিভ্রান্তিকর অস্পষ্ট ক্লিপ নয়, আমি পুরো ভিডিওটি চাই। শুরু থেকেই বলে আসছি, ক্লাবের ভেতরের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করার জন্য। যদি কয়েক সেকেন্ড পাওয়া যায়, তাহলে নিশ্চয়ই পুরো ফুটেজই আছে। আমি সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করে আবারও বলছি, দয়া করে পুরো ফুটেজ প্রকাশ করুন। সবাই সত্যটা জানুক কী ঘটেছে সেই রাতে।’
 
তদন্ত সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা জানান, পরীমণি মামলার এজাহারে ঘটনার যেভাবে বর্ণনা দিয়েছেন তার সঙ্গে ভিডিও দৃশ্যের কোনও মিল নেই। পরীমণি তাকে জোর করে মদের বোতল মুখে ঢুকিয়ে দেওয়ার কথাও বলেছেন। কিন্তু ভিডিও দৃশ্যে পরীমণিকে স্বেচ্ছায় মদপান করতে দেখা গেছে। ভেতরের এসব ভিডিও দৃশ্য এবং ঢাকা বোট ক্লাবের প্রধান ফটক ও অভ্যর্থনা কক্ষের সিসিটিভি ফুটেজ মিলিয়ে দেখা হচ্ছে।
 
এদিকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, তারা তিন নারীসহ নাসির ইউ মাহমুদ ও অমিকে মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতার করেছিলেন। তাদের মাদক মামলায় রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরীমণির ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে নাসির ইউ মাহমুদ ও অমি ঢাকা বোট ক্লাবে মদপানের একপর্যায়ে একটি বিদেশি মদের বোতল নেওয়া নিয়ে বিতর্কের পর হাতাহাতির বর্ণনা দিয়েছেন।
 
ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানান, যেহেতু পরীমণির ঘটনায় সাভার থানায় মামলা হয়েছে, ফলে ধর্ষণচেষ্টার ওই মামলার বিষয়ে সাভার থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করবে। তারা মাদকের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। ইতোমধ্যে তিন দিনের রিমান্ডে থাকা তিন নারীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নাসির ও অমির সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছিল। রিমান্ড শেষে বুধবার (২৩ জুন) তাদের আদালতে সোপর্দ করা হবে। এরপর সাভার থানা পুলিশ তাদের রিমান্ডে নিয়ে পরীমণির মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করবে।
 
এর আগে গত ১৩ জুন নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করেন অভিনেত্রী পরীমণি। বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে পরদিনই সাভার থানায় শুধু ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন তিনি। ১৪ জুন উত্তরার একটি বাসা থেকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ অভিযুক্ত নাসির ইউ মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমিকে মাদকসহ গ্রেফতার করে।
 
এদিকে পরীমণি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে মঙ্গলবার (২২ জুন) ইয়োগা করার কয়েকটি স্থিরচিত্র আপলোড করেছেন। সেখানে নিজের করা ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া নিয়ে লেখক ডেভ পেলজারের একটি উক্তি যুক্ত করেছেন।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।