• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২১:৫৪    ঢাকা সময়: ০৭:৫৪

বিয়ের চার মাস পর মা হলেন দিয়া মির্জা

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  বলিউড অভিনেত্রী গেল ফেব্রুয়ারিতে বিয়ে করেন। তিন মাস পার হতেই সুখবর দিলেন, মা হয়েছেন তিনি৷ ১৪ জুলাই, বুধবার টুইটারের মাধ্যমে অনুরাগীদের সঙ্গে তিনি ভাগ করে নিলেন এ সুখবর। জানালেন, তিনি এবং স্বামী বৈভব রেখি মিলে ছেলের নাম রেখেছেন, ‘অভিযান’।
সন্তানকে গর্ভে ধারণ করা থেকে তাকে জন্ম দেওয়ার এই যাত্রায় যারা দিয়া এবং বৈভবের পাশে ছিলেন, তাদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানিয়েছে তারকা দম্পতি। তার সঙ্গেই লিখেছেন, ‘এই ছোট্ট প্রাণটাকে আমরা অবাক হয়ে দেখছি। অভিভাবক হওয়া এবং এই বিশ্বসংসারের উপর আস্থা রাখার প্রকৃত অর্থ বিনীত হয়ে ওর কাছ থেকেই শিখছি আমরা।’
গত ফেব্রুয়ারি মাসে প্রেমিক বৈভব রেখির সঙ্গে বৈদিক মতে বিয়ে সারেন দিয়া। বিয়ের আগেই গর্ভবতী হওয়ায় নেটমাধ্যমে নানা কটাক্ষের মুখে পড়েন অভিনেত্রী। কিন্তু নেতিবাচক মন্তব্যে কান না দিয়ে সৎ মেয়ে এবং স্বামীকে নিয়ে ঘুরতে যান মলদ্বীপে। বৈভবের প্রথম পক্ষের মেয়ে সামায়রার সঙ্গেও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। সুখবর জানানোর পোস্টেও দিয়া উল্লেখ করেছেন সামায়রার কথা। তিনি লিখেছেন, ‘ও খুব তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরবে। দিদি সামায়রা এবং ঠাকুরদা-ঠাকুমা ওকে কোলে নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করে রয়েছেন।’
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।