• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২১:৪৬    ঢাকা সময়: ০৭:৪৬

পেগাসাস কেলেঙ্কারি: ফাঁস হওয়া তথ্যে ম্যাক্রোঁ ইমরান খান

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  ২০১৯ সাল থেকে ১৭টি দেশের সংবাদমাধ্যম মিলে ‘দ্য পেগাসাস প্রজেক্ট’ নামের একটি প্ল্যাটফর্ম থেকে ইসরায়েলি স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে ফোনে নজরদারির বিষয়ে অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে। রবিবার এই অনুসন্ধানের ভিত্তিতে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এতে উঠে এসেছে দুনিয়াজুড়ে নজরদারির শিকার হয়েছেন মানবাধিকার কর্মী, রাজনীতিক, সাংবাদিক, আইনজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সদস্যরা। বিশ্বজুড়ে ৫০ হাজার ফোন হ্যাক করে সেগুলোতে নজরদারি চালানোর বিষয়টি। সিএনএন, আল জাজিরা এবং নিউইয়র্ক টাইমসসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের ১৮০ জনেরও বেশি সাংবাদিকের নাম এই তালিকায় রয়েছে।
 
দ্য গার্ডিয়ান জানায়, ম্যাক্রোঁ ও ইমরান খান ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসার নম্বর রয়েছে। এছাড়া এতে আছে ৩৪টি দেশে কূটনীতিক, সামরিক প্রধান ও সিনিয়র রাজনীতিকদের মোবাইল ফোন নম্বর।
 
গুরুত্বপূর্ণ যেসব রাজনৈতিক নেতা ও কূটনীতিকের নাম উঠে এসেছে
সিরিল রামাফোসা, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট, ২০১৯ সালে রুয়ান্ডা কর্তৃক টার্গেট করা হয়েছে বলে তথ্যে উঠে এসেছে।
 
এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট, ২০১৯ সালে মরক্কোর কোনও এক ব্যক্তি তাকে টার্গেট করেছেন। ফরাসি প্রেসিডেন্টের কার্যালয় জানিয়েছে, যদি এটি সত্যি তাহলে খুব ভয়াবহ।
 
টেড্রোস আডানম গেব্রিয়াসিস, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান, ২০১৯ সালে মরক্কো থেকে তাকে টার্গেট করা হয়েছে।
 
সাদ হারিরি, লেবাননের সাবেক প্রধানমন্ত্রী, ২০১৮ ও ২০১৯ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃক টার্গেট করা হয়।
 
চার্লস মাইকেল, ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট, ২০১৯ সালে বেলজিয়ামের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন মরক্কো থেকে কোনও ব্যক্তির টার্গেটে পরিণত হন।
 
মরক্কো বাদশাহ মোহাম্মদ ষষ্ঠ, ২০১৯ সালে তার নিজ নিরাপত্তাবাহিনী কর্তৃক টার্গেট হয়েছেন বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।
 
সাদেদ্দিন ওথমানি, মরক্কোর প্রধানমন্ত্রী। ২০১৮ ও ২০১৯ সালে তার দেশের ভেতর থেকেই কেউ টার্গেট করে।
 
ইমরান খান, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। ২০১৯ সালে ভারতের কোনও ব্যক্তি দ্বারা টার্গেট হন।
 
ফিলিপ কালডেরন, মেক্সিকোর সাবেক প্রেসিডেন্ট। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে তার নম্বর টার্গেট করা হয়।
 
রবার্ট মালেই, মার্কিন-ইরান চুক্তির প্রধান মধ্যস্থত্যকারী ও দীর্ঘ সময়ের দূত। ২০১৯ সালে মরক্কোর কোনও ব্যক্তি তার নম্বর টার্গেট করেন।
 
দ্য গার্ডিয়ান জানায়, পেগাসাস প্রকল্পের পক্ষ থেকে এই নেতা ও কূটনীতিকদের মোবাইল ফোন পরীক্ষা করা সম্ভব হয়নি। তাই তাদের ফোনে কোনও মেলওয়্যার ইনস্টল করা হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।