• শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২ আশ্বিন ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ০৯:৩০    ঢাকা সময়: ১৯:৩০

এক ঘুমে হারিয়ে গেলো দুই দশক

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন :  যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের বাসিন্দা ড্যানিয়েল পোর্টার। ৩৭ বছর বয়সী এই ব্যক্তির রয়েছে স্ত্রী আর দশ বছর বয়সী এক মেয়ে। এক রাতে ঘুমিয়ে সকালে স্বাভাবিকভাবেই ওঠেন তিনি। ভাবতে থাকেন ১৯৯০ এর দশকে রয়েছেন তিনি। তৈরি হতে থাকেন স্কুলে যাওয়ার জন্য। জীবন থেকে দুই দশক আর স্ত্রীকে বিয়ে করা এমনকি মেয়ে থাকার কথাও ভুলে যান তিনি।
 
হিয়ারিং স্পেশালিস্ট ড্যানিয়েল পোর্টার গত বছরের জুলাইয়ের সেই সকালে ঘুম থেকে উঠে বসের অন্য দিনের মতোই। মনে হতে থাকে পাশে ঘুমিয়ে থাকা নারীকে তিনি চেনেনই না, আয়নায় তাকাতেই দেখতে পান ‘বয়স্ক আর মোটা’ এক লোক তার দিকে তাকিয়ে আছে। সব চিন্তা ছেড়ে স্কুলে যাওয়ার জন্য তৈরি হতে থাকেন। অথচ দুই দশক আগেই স্কুলের পাঠ চুকিয়ে ফেলেছেন তিনি। আর বিছানায় শুয়ে থাকা অদ্ভূত নারীটি তার স্ত্রী। তার সঙ্গে রয়েছে তাদের একটি ১০ বছরের মেয়ে।
 
৩৬ বছর বয়সে ড্যানিয়েলের সঙ্গে যখন এমন ঘটনা ঘটে তখন তিনি নিজেকে ১৬ বছর বয়সী বলে ভাবছিলেনৈ। ওই সময়ে তার স্ত্রী রুথ তাকে শান্ত করেন আর বোঝান যে, তিনিই তার স্ত্রী আর তাকে অপহরণ করা হয়নি। রুথ বলেন, ‘সে এক সকালে উঠলো আর সে নিজের পরিচয় এমনকি কোথায় আছে তাও মনে করতে পারছিলো না। খুবই দ্বিধান্বিত ছিলো। এমনটি নিজের ঘরও চিনতে পারছিলো না। সে ভাবছিলো হয়তো সে মাতাল আর কোনও নারীর সঙ্গে তার বাড়িতে গেছে বা তাকে অপহরণ করা হয়েছে। দেখতে পেলাম সে যেন পালানোর পথ খুঁজছে।’
 
পরে পোর্টারকে নিয়ে তার বাবা-মায়ের বাড়িতে যান রুথ। সেখানে তারা তাকে বোঝাতে সক্ষম হন যে তিনি নিরাপদে আছেন। তবে এখন পর্যন্ত নিজের দশ বছর বয়সী মেয়ে লিবিকে চিনতে পারেননি পোর্টার। চিকিৎসকেরা জানান ড্যানিয়েল পোর্টার মূলত ট্রান্সিয়েন্ট গ্লোবাল অ্যামনেসিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই রোগে মানুষ হঠাৎ করে অস্থায়ীভাবে স্মৃতি হারিয়ে ফেলেন। চিকিৎসকেরা জানান, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পোর্টার স্বাভাবিক স্মৃতিতে ফিরতে পারেন। কিন্তু এক বছর পার হয়ে গেলেও নিজের হারিয়ে ফেলা ২০ বছর জীবনের স্মৃতি মনে করতে পারেননি তিনি।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।