• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ১৩:২৬    ঢাকা সময়: ২৩:২৬

৮২ হাজার অনিবন্ধিত হ্যান্ডসেট বন্ধ করেছে বিটিআরসি

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন : বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) শুক্রবার (১ অক্টোবর) সকাল থেকে অনিবন্ধিত নতুন মোবাইল হ্যান্ডসেট বন্ধ করতে শুরু করে। ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টারে (এনইআইআর) নিবন্ধিত না থাকায় শনিবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা ৮১ হাজার ৮৬৮টি হ্যান্ডসেট বন্ধ করে দিয়েছে। বিটিআরসি গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব সক্রিয় মোবাইল ফোন এনইআইআরে নিবন্ধিত করেছে।
 
বিটিআরসির তথ্য অনুসারে, শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সন্ধ্যার মধ্যে ১ লাখ ৪৫ হাজার হ্যান্ডসেট প্রথমবারের মতো নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়েছে। কেউ নতুন মোবাইল ফোন দিয়ে সেলুলার নেটওয়ার্কে প্রবেশ করলে, ফোনটি নিবন্ধিত কিনা তা জানিয়ে তাকে বার্তা পাঠানো হবে। সেই বার্তায় যদি মোবাইল ফোনটি অনিবন্ধিত বলে জানানো হয়, তবে তাদেরকে বিটিআরসি neir.btrc.gov.bd তে গিয়ে ফর্ম পূরণ করে নিবন্ধন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। হ্যান্ডসেট নিবন্ধনের জন্য অন্যান্য তথ্যের পাশাপাশি ফোনের বিক্রয় রসিদ ও ব্যবহারকারীর পাসপোর্ট নম্বর প্রয়োজন হবে।
 
সেট বৈধ না অবৈধ যাচাইয়ের পদ্ধতি
ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে KYD টাইপ করে স্পেস দিয়ে মোবাইলের ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বর লিখে সেটি ১৬০০২ নম্বরে পাঠালে ফিরতি এসএমএসে আইএমইআই নম্বরটি বিটিআরসির ডাটাবেজে সংরক্ষিত আছে কিনা তা জানা যাবে। ফিরতি মেসেজে ডাটাবেজে সংরক্ষণের তথ্য থাকলে সেটি হবে বৈধ ফোন।
 
বিদেশ থেকে আনা ফোনের কী হবে?
নিয়ম মেনে বিদেশ থেকে ফোন আনলে তা নিবন্ধন করে চালু করা যাবে। ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য বিদেশ থেকে ৮টি মোবাইল ফোন আনা যাবে। প্রত্যেক যাত্রী প্রতিটি বোর্ডিং পাস বা সংশ্লিষ্ট ভ্রমণ সংক্রান্ত কাগজ অনুযায়ী বিটিআরসি’র অনাপত্তিপত্র ছাড়া ৮টি মোবাইল ফোন নিয়ে আসতে পারবেন। তবে এসব মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেটের মধ্যে সর্বোচ্চ দুটি আনা যাবে বিনা শুল্কে। বাকিগুলোর ক্ষেত্রে কাস্টমস সংশ্লিষ্ট আইন প্রযোজ্য হবে।
 
বিদেশ থেকে সেট আনলে পাসপোর্ট, ভিসার কপি, পণ্য ক্রয়ের রশিদ ইত্যাদি দেখিয়ে ওয়েবসাইটে (www.neir.btrc.gov.bd) গিয়ে ফোনটি নিবন্ধন করা যাবে। উপহার পেলে তার পক্ষেও প্রমাণপত্র থাকতে হবে। প্রসঙ্গত, এখন থেকে যারা গ্রাহকদের কাছে অনিবন্ধিত হ্যান্ডসেট বিক্রি করবেন, তাদের অবশ্যই ক্রেতাকে টাকা ফেরত দিতে হবে। তা না হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 
উল্লেখ্য, এনইআইআর হচ্ছে বিটিআরসির ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটির (আইএমইআই) ডাটাবেজ। এটি গত ১ জুলাই পরীক্ষামূলকভাবে এবং গত ১ অক্টোবর পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হয়েছে।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।