• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ১৪:২২    ঢাকা সময়: ০০:২২

নৃত্যের মৌলিক কম্পোজিশন তৈরির উদ্যোগ শিল্পকলা একাডেমির

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন : নৃত্য উপযোগী ৩০টি মৌলিক মিউজিক কম্পোজিশন নির্মাণের লক্ষ্যে দেশের বিশিষ্ট সংগীত পরিচালকদের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন করেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। প্রতিষ্ঠানটির পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, একাডেমির সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় নৃত্য উপযোগী শাস্ত্রীয়, সমসাময়িক ও ফোক ধারার ৩০টি মৌলিক কম্পোজিশন নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। চুক্তির আওতায় ৩০টি নৃত্য উপযোগী মিউজিক কম্পোজিশন তৈরির জন্য ৩০ জন সংগীত পরিচালককে ৪৫ লাখ টাকা দেয়া হবে।
 
এ বিষয়ে একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী জানান, ‘নৃত্য উপযোগী মৌলিক মিউজিক কম্পোজিশন (ইনস্ট্রুমেন্টাল) নিয়ে বাংলাদেশে এর আগে কেউ উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। পরিকল্পনা মোতাবেক দেশের খ্যাতনামা সংগীত পরিচালকদের দিয়ে শাস্ত্রীয়, সমসাময়িক ও ফোক এ তিন ধারার নৃত্য উপযোগী মিউজিক কম্পোজিশন নির্মাণ করা হবে। কাজটি নৃত্যচর্চার ক্ষেত্রে আমাদের জন্য একটি বড় অর্জন হয়ে থাকবে বলে আশা করছি।’
 
৪ অক্টোবর বিকাল ৪টায় একাডেমির সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি বিভাগের পরিচালক কাজী আফতাব উদ্দিন হাবলুর সভাপতিত্বে তার অফিসকক্ষে দেশের খ্যাতনামা ও প্রতিষ্ঠিত সংগীত পরিচালকদের সঙ্গে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মিউজিক কম্পোজিশন নির্মাণের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা ও চুক্তিপত্র স্বাক্ষর হয়। উপস্থিত সংগীত পরিচালকরা এ ধরনের মিউজিক কম্পোজিশন নির্মাণের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত এবং উচ্ছ্বসিত। এ উদ্যোগের জন্য তারা বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। কাজটি সংগীত ও নৃত্য অঙ্গনের জন্য একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মনে করছেন উপস্থিত সংগীত পরিচালকরা।
 
সভায় দেশের বিশিষ্ট ও বরেণ্য সংগীত পরিচালক শেখ সাদী খান, কাজী আফতাব উদ্দিন হাবলু, মানাম আহমেদ, ইবরার টিপু, মকসুদ জামিল মিন্টু, ইবনে রাজন, শেখ জসীম, সানি জোবায়ের, বিনোদ রায়, তানভীর আলম সজীব, আনিসুর রহমান তনু, ওমর আল ফারুক এজাজ, কমল খালিদ, বিপ্লব বড়ুয়া, রিপন খান, কাজী আনানসহ ১৮ জন সংগীত পরিচালক উপস্থিত ছিলেন। 
দেশকণ্ঠ/আসো

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।