• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২০:০৬    ঢাকা সময়: ০৬:০৬

স্কুল ও রিসোর্ট-স্পা সেন্টারে প্রবেশের এক রাস্তা

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন : টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার দাপনাজোর এলাকায় পাশাপাশি গড়ে ওঠে মার্থা লিডস্ট্রিম নূরজাহান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও ওয়াটারগার্ডেন রিসোর্ট এবং স্পা সেন্টার। বিকল্প রাস্তা না থাকায় একই গেট আর রাস্তা দিয়েই চলছে গার্লস স্কুল ও বিনোদনকেন্দ্রের যাতায়াত। এ নিয়ে যেমন সৃষ্টি হয়েছে বিতর্ক, তেমনি রয়েছে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হওয়ার শঙ্কা।
 
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৯৯২ সালে স্থানীয় প্রভাবশালী আখতার হামিদ মাসুদ, তার ছোট ভাই আহসান হাবিব এবং তাদের নরওয়ের নাগরিক এক বন্ধু মিলে প্রতিষ্ঠা করেন মার্থা লিডস্ট্রিম নূরজাহান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি। ২০২০ সালে স্কুলের প্রতিষ্ঠাতারাই এর পাশেই বিশাল জায়গা নিয়ে বাণিজ্যিকভাবে ওই ওয়াটারগার্ডেন চালু করেন। তবে এর জন্য রাখা হয়নি পৃথক গেট বা রাস্তার ব্যবস্থা। ফলে একই গেট আর রাস্তা ব্যবহার করছেন বিনোদন প্রেমী নারী-পুরুষসহ স্কুলের ছাত্রীরা।
 
শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানান, স্কুলটিতে উপজেলার দাপনজোর ও আশপাশের গ্রামের প্রায় আড়াই শতাধিক কিশোরী লেখাপড়া করছে। পৃথক গেট আর রাস্তা না থাকায় স্কুল আর বিনোদন কেন্দ্রে সবাইকে এক গেট আর রাস্তা দিয়েই যাতায়াত করতে হচ্ছে। এ কারণে স্কুল ছাত্রীদের মানসিক অবক্ষয় হচ্ছে। এছাড়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটারও আশঙ্কা আছে। ফলে চরম নিরাপত্তাহীনতায় আছে স্কুলের শিক্ষার্থীরা। দ্রুত স্কুলের বাউন্ডারিসহ পৃথক গেট আর রাস্তা নির্মাণের দাবি জানান তারা।
 
এ বিষয়ে মার্থা লিডস্ট্রিম নূরজাহান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মানছুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, পরিবেশগত কারণ আর অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার শঙ্কায় আছি। এ কারণে দ্রুত স্কুলের বাউন্ডারি এবং পৃথক রাস্তা আর গেট নির্মাণের জন্য আলোচনা চলছে। এ বিষয়ে ওয়াটারগার্ডেনের জেনারেল ম্যানেজার (ভারপ্রাপ্ত) মিজানুর রহমান মিজান জাগো নিউজকে বলেন, মালিক পক্ষ দেশের বাইরে আছেন। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তারা আসবেন। এ ব্যাপারে কথাও হয়েছে। তারা দেশে আসলেই স্কুলের জন্য পৃথক গেট আর রাস্তার ব্যবস্থা করা হবে। বিষয়টি দৃষ্টিকটু ও অশোভনীয় দাবি করে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক ড. আতাউল গণি।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।