• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ১৮:৫৪    ঢাকা সময়: ০৪:৫৪

নালিতাবাড়ী সীমান্তে হাতি তাড়াতে লাইট বিতরণ

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন  : জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী তিনটি ইউনিয়নের স্বেচ্ছা সেবকদের মাঝে  আজ হাতি তাড়াতে লাইট বিতরণ করা হয়েছে । সকালে উপজেলা পরিষদের হল রুমে এ সব লাইট বিতরণ করা হয়। 
 
জানাগেছে,গত কয়েকদিনে উপজেলার সীমান্ত এলাকার পানিহাটা ফেকামারী এলাকায় পাকা আমন ধান খেয়ে ও পায়ে পিষ্ট করে শতাধিক কৃষকের প্রায় ৪০-৫০ একর জমির ধান নষ্ট করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতেও ওই এলাকার প্রায় ৪-৫ একর জমির ধান নষ্ট করে গেছে হাতির দল। হাতিগুলো দিনের আলোতে পাহাড়ে অবস্থানের পর রাতের আঁধার নামলেই লোকালয়ে নেমে আসে। তান্ডব চালায় আমনের ফসলি জমিতে। ফসল খেয়ে ও পা দিয়ে পিষিয়ে নষ্ট করে পাকা ধান। এ অবস্থায় শত শত কৃষক রাত জেগে পাহারা বসিয়ে, পটকা ফাটিয়ে ও মশাল জ্বালিয়ে লাঠি হাতে সরব থাকলেও বন্ধ করা যাচ্ছে না হাতির তান্ডব।
 
হাতি তাড়াতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নয়াবিল ইউনিয়ন,পোড়াগাঁও ইউনিয়ন ও রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়নের ৩০ জন স্বেচ্ছা সেবককে একটি করে সার্চ লাইট দেওয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মোমিনুর রশীদ,পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী,স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক জিয়াউল  ইসলাম,নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোকছেদুর রহমান লেবু,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হেলেনা পারভীন।
দেশকণ্ঠ/আসো

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।