• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ১৯:৩৯    ঢাকা সময়: ০৫:৩৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে জন্ম নিলো জলহস্তি শাবক

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন : জেলার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে একটি জলহস্তি গতমাসের ২১ তারিখে নতুন শাবকের জন্ম দিয়েছে। শাবকটি মঙ্গলবার বিকেলে মায়ের সাথে ডাঙায় ঘুরতে দেখা যায়। এর আগে, ২০১৬ ও ২০১৮ সালে জলহস্তি শাবকের জন্ম হলেও তাকে বাঁচানো যায়নি। বর্তমানে এই পার্কে নতুন শাবকসহ জলহস্তির সংখ্যা ৩টি। তবে নতুন এ শাবকটির লিঙ্গ এখনো নির্ধারণ করতে পারেনি পার্ক কর্তৃপক্ষ।
 
সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষের তথ্যমতে, অনিয়ন্ত্রিত শিকার ও চোরাচালানের কারণে ২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘ (আইইউসিএন) জলহস্তিকে সংকটাপন্ন প্রাণীর তালিকায় স্থান দিয়েছে। জলহস্তিকে পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহৎ প্রাণী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সাধারণত জলহস্তির দৈর্ঘ্য ৩ দশমিক ৫ মিটার, উচ্চতা ১ দশমিক ৫ মিটার এবং ওজন হয়ে থাকে ৩ হাজার কেজি পর্যন্ত। এরা নিশাচর প্রাণী। রাতের বেলায় খাবারের খোঁজে বের হয়। জলহস্তির গর্ভধারণের সময়কাল ১০ মাস। 
 
প্রতিবার একটি করে শাবক জন্ম দিয়ে থাকে মা জলহস্তি। পার্কের বন্যপ্রাণী পরিদর্শক আনিছুর রহমান বলেন, জন্মের পর এখন পর্যন্ত শাবকটি সুস্থ রয়েছে। মা ও তার শাবকের পুষ্টিমানের কথা বিবেচনা করে খাবারের পরিমাণও বাড়ানো হয়েছে। দিনের বেশিরভাগ সময় শাবকটি মায়ের সঙ্গে পানিতেই থাকছে। সারা শরীর ডুবিয়ে চোখ বের করে কচুরিপানার ভেতরেই লোকচক্ষুর আড়াল হয়ে থাকে সে। তবে মাঝে মধ্যে মায়ের সঙ্গে সে ডাঙায়ও উঠে আসে।
 
সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তবিবুর রহমান বলেন, পার্কটির প্রতিষ্ঠালগ্নেই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দু’টি জলহস্তি আনা হয়। এর আগেও তারা দু’টি বাচ্চার জন্ম দিলেও শাবকগুলোকে বাঁচানো যায়নি। তবে এবারের শাবকটিকে কড়া নজরে রাখছে তার মা। প্রায় একমাস বয়স হয়েছে শাবকটির। এখন পর্যন্ত ভালোভাবেই বড় হচ্ছে সে। আশা করছি, এবারের শাবকটি টিকে যাবে।
দেশকণ্ঠ/আসো

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।