• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  নিউইয়র্ক সময়: ২০:৩৫    ঢাকা সময়: ০৬:৩৫

কোভিড পিল ব্যবহারের অনুমোদন দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চিঠি

দেশকণ্ঠ প্রতিবেদন : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশে কোভিড উপসর্গযুক্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য দেশে ওরাল ট্যাবলেট "মলনুপিরাভির" ব্যবহারের অনুমোদন দিয়ে দেশের সব হাসপাতালে চিঠি দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে কোভিড আক্রান্ত গুরুতর রোগী এবং অন্যান্য গুরুতর রোগে আক্রান্তদের জন্য এই ট্যাবলেট ব্যবহার করা যাবে না বলেও জানিয়েছে অধিদপ্তরটি।
 
জরুরি ব্যবহারের জন্য কিছুদিন আগেই মলনুপিরাভির অ্যান্টিভাইরাল  ট্যাবলেটটি তৈরির অনুমোদন দিয়েছিল ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। তার এক সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এই অনুমোদন এসেছে। ১৬ নভেম্বর  দেশের সব হাসপাতালে পাঠানো চিঠিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলে, " যেসব কোভিড আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে হালকা থেকে মাঝারি লক্ষণ দেখা যায়, তারা চিকিৎসার জন্য এই ওষুধ ব্যবহার করতে পারবেন।"
 
কোভিডের গুরুতর লক্ষণযুক্ত রোগীদের ক্ষেত্রে এই ওষুধ ব্যবহার না করার বিষয়টি নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা ফরিদ হোসেন মিয়া বলেন, "৬০ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিদের মধ্যে যাদের ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কার্ডিওভাসকুলার রোগ বা অন্যান্য সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রে এ ওষুধটি সেবন করা উচিত না।" শিগগিরই কোভিডের ক্লিনিকাল নির্দেশিকাতে ওষুধটি অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।
 
ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান গত সপ্তাহে একটি সংবাদ সম্মেলনে জানান, ওষুধটি হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুহার কমপক্ষে অর্ধেকে নামিয়ে আনতে ভূমিকা রাখবে। এখন পর্যন্ত বেক্সিমকো, এসকেএফ, স্কয়ার এবং রেনাটাকে "মলনুপিরাভির" ট্যাবলেট তৈরি ও বাজারজাত করার অনুমোদন দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর। গত ৪ নভেম্বর উপসর্গযুক্ত কোভিডের চিকিৎসার জন্য বিশ্বের প্রথম ওরাল ট্যাবলেট হিসেবে "মলনুপিরাভির" এর অনুমোদন দেয় যুক্তরাজ্যের মেডিসিনস অ্যান্ড হেলথ কেয়ার প্রোডাক্ট রেগুলেটরি এজেন্সি।
দেশকণ্ঠ/অআ

  মন্তব্য করুন
AD by Deshkontho
AD by Deshkontho
আরও সংবাদ
×

আমাদের কথা: ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন মিডিয়া। গতি ও প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষও তথ্যানুসন্ধানে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে অনলাইন। যতই দিন যাচ্ছে, অনলাইন মিডিয়ার সঙ্গে মানুষের সর্ম্পক তত নিবিড় হচ্ছে। দেশ, রাষ্ট্র, সীমান্ত, স্থল-জল, আকাশপথ ছাড়িয়ে যেকোনো স্থান থেকে ‘অনলাইন মিডিয়া’ এখন আর আলাদা কিছু নয়। পৃথিবীর যে প্রান্তে যাই ঘটুক, তা আর অজানা থাকছে না। বলা যায় অনলাইন নেটওয়ার্ক এক অবিচ্ছিন্ন মিডিয়া ভুবন গড়ে তুলে এগিয়ে নিচ্ছে মানব সভ্যতার জয়যাত্রাকে। আমরা সেই পথের সারথি হতে চাই। ‘দেশকণ্ঠ’ সংবাদ পরিবেশনে পেশাদারিত্বকে সমধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে বদ্ধপরির। আমাদের সংবাদের প্রধান ফোকাস পয়েন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির যাপিত জীবনের চালচিত্র। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের সংবাদও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা একঝাক ঋদ্ধ মিডিয়া প্রতিনিধি যুক্ত থাকছি দেশকণ্ঠের সঙ্গে।